01:57am  Saturday, 31 Oct 2020 || 
 ||


ফরিদপুরে কৃষকের ঘরে বইছে নবান্ন উৎসবের আমেজ। জেলার বিস্তৃত মাঠ জুড়ে থাকা পাকা ধান ঘরে তুলতে শুরু করেছেন কৃষকরা। একদিকে নতুন ধান ঘরে তোলা অন্যদিকে শীতের আগমনী বার্তায় জেলার কৃষকদের ঘরে বইছে আনন্দের বন্যা। কৃষাণ বধূরা ব্যস্ত নতুন ধানের চালের পিঠাপুলি তৈরিতে। ঢেঁকির ক্যাচকুচ আর খটখটানি শব্দে মুখরিত ফরিদপুরের গ্রামীণ জনপদ। নতুন ধানে কৃষাণ বধূরা চিতই পিঠা, ভাপা পিঠা, পাটিসাপ্টা, আনদশা ও কুলি পিঠাসহ নানা রকম পিঠা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর ফরিদপুর জেলায় আমনের ফলন ও ভালো হয়েছে। ধান চাষিরা জানান, গোড়কাজল, কাইলোনি, দিঘাধানে তৈরি হয় সুস্বাদু পিঠা। হারাতে বসা এসব ধান পেয়ে খুশি কৃষাণ বধূরা। ফরিদপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক শংকর চন্দ্র ভৌমিক জানান, ফরিদপুরে এ বছর ৪৭ হাজার হেক্টর জমিতে ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা থাকলে ১২ হাজার হেক্টর জমিতে ধান চাষ হয়েছে। তারপরও খরা এবং পোকার ধকল কাটিয়ে তুলে কৃষকরা এবার আমনের ভালো ফলন পেয়েছেন। তাদের মুখে ফুটেছে হাসি। তাদের ঘরে ঘরে বইছে নবন্ন উৎবের আমেজ। ধানের ন্যায্য মূল্য পেলে কৃষকের হাসি অম্লান থাকবে এমনটাই প্রত্যাশা করেছেন তিনি।

 

কৃষি



Editor : Husnul Bari
Address : 8/A-8/B, Gawsul Azam Super Market, Newmarket, Dhaka-1205
Contact : 02-9674666, 01611504098

Powered by : Digital Synapse